ব্রেকিং নিউজ

বেনাপোলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে নিহত-১ আহত-২


প্রকাশিত : রবিবার, ২০২২ এপ্রিল ১৭, ১২:৩৭ অপরাহ্ন
0
বেনাপোল প্রতিনিধি: যশোরের বেনাপোলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এমপি গ্রুপ ও মেয়র গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে ২ জন মারাত্মক আহত এবং ১ জন নিহতের ঘটনা ঘটেছে।   গত ১৬ এপ্রিল রাত ৮ টার সময় যশোরের বেনাপোলের কাগজপুকুর রেললাইনের পাশে মেয়র গ্রুপ ও এমপি গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ ঘটনাটি ঘটে।   নিহত মগর আলী (৬০) কাগজপুকুর গ্রামের মৃত শারেং আলি ছেলে এবং মেয়র গ্রুপ এর সমর্থক ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক। আহত হাসান আলী ছেলে ইয়াসিন (১৬) ও মগর আলী ছেলে হাসান আলি গুরুতর আহত হন।   জানা যায়, বেনাপোল পৌর মেয়রের পার্টি অফিস থেকে মগর আলী, ইয়াসিন ও হাসান আলী ইফতার শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। পূর্বপরিকল্পনা মাফিক এমপি সমার্থকেরা তাদের পিছু নেই। কাগজপুকুর রেল লাইন ক্রস করলেই দু'গ্রুপের মধ্যে মারামারির এক পর্যায়ে ছুরিকাঘাতে মারাত্মক ভাবে আহত হন। এসময় মগর আলীর পেটের ভুড়ি বের হয়ে যায় ও ইয়াসিনের এক পাশের কিডনিতে চাকু অনেকটা ভিতরে ঢুকে যায় এবং হাসান আলীর মাথায় আঘাত লাগে। তাদেরকে রাত সাড়ে ৯টার দিকে যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। যশোর সদর হাসপাতালে ভর্তির কিছুক্ষণ পরেই মগর আলীর মৃত্যু হয়।   নিহতের ছেলে হোসেন আলী বলেন, আমার বাবা আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতেন। তিনি বেনাপোল পৌর এলাকার ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বেনাপোল পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম লিটনের সমর্থক।   তিনি আরো বলেন, হামলার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। বাবাকে বাঁচাতে গেলে আমাদেরও ছুরিকাঘাত ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়। এ সময় আমি আমার ভাই হাসান ও ভাইপো ইয়াসিনকে ছুরি ও দা দিয়ে আঘাত করা হয়। পরে আমরা যশোর জেনারেল হাসপাতালে এসে ভর্তি হই।   বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামাল হোসেন ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলা করা হলে অপরাধীকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।
আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন


মন্তব্য করুন

Video