পারমাণবিক যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত রাশিয়া : পুতিন

Bortoman Protidin

১৩ দিন আগে বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৫, ২০২৪


#

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন পশ্চিমকে হুশিয়ারি দিয়ে জানান, দেশটি কারিগরি দিক দিয়ে পারমাণবিক যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত। রাশিয়ায় নির্বাচনের মাত্র দুইদিন আগে যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমাদের উদ্দেশে এই হংকার দিলেন তিনি। পুতিন আরো জানান, যুক্তরাষ্ট্র যদি ইউক্রেনে সেনা পাঠায়, তাহলে তিনি ধরে নেবেন যুদ্ধের মাত্রা উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে। বুধবার (১৩ মার্চ) এই তথ্য জানিয়েছে রয়টার্স।

১৫-১৭ মার্চ রাশিয়ায় সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনকে সামনে রেখে দেয়া বক্তব্যে পুতিন জানান, এ মুহূর্তে পারমাণবিক যুদ্ধ নিয়ে 'তাড়াহুড়া' করার কিছু নেই এবং তিনি মনে করেন না ইউক্রেনে এ ধরনের অস্ত্র ব্যবহারের প্রয়োজন আছে। এই নির্বাচনে জয়লাভ করলে আরো অন্তত ছয় বছর ক্ষমতায় থাকবেন পুতিন।

রাশিয়া পারমাণবিক যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত কী না, এ প্রশ্নের জবাবে রোসিয়া ওয়ান টিভি ও রিয়া সংবাদসংস্থাকে পুতিন (৭১) বলেন, 'সামরিক ও কারিগরি দিক দিয়ে, অবশ্যই আমরা প্রস্তুত।' পুতিন মত প্রকাশ করেন, যুক্তরাষ্ট্র খুব ভালো করেই জানে যে তারা যদি রুশ ভূখণ্ড বা ইউক্রেনে মার্কিন সেনা মোতায়েন করে, তাহলে রাশিয়া এ বিষয়টিকে 'হস্তক্ষেপ' হিসেবে বিবেচনা করবে। '(যুক্তরাষ্ট্রে) রুশ-মার্কিন সম্পর্ক ও কৌশল নিয়ে যথেষ্ট পরিমাণ বিশেষজ্ঞ রয়েছে', যোগ করেন পুতিন। পুতিন আরো বলেন, 'সুতরাং, আমার মনে হয় না চলমান ঘটনাপ্রবাহ আমাদেরকে দ্রুত সেদিকে (পারমাণবিক যুদ্ধ) ঠেলে দিচ্ছে। তবে আমরা প্রস্তুত আছি।'

বিশ্লেষকদের মতে, ইউক্রেনে আগ্রাসন চালানোর ফলে ১৯৬২ সালের কিউবান মিসাইল সংকটের পর পশ্চিমের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্কে সবচেয়ে বড় আকারের ফাটল ধরেছে।

পুতিন বলেন, 'রাশিয়া, ইউক্রেনের সঙ্গে দরকষাকষির জন্য প্রস্তুত, কিন্তু এ ধরনের আলোচনা হতে হবে বাস্তবতার ভিত্তিতে—মাদকদ্রব্য গ্রহণের পর মনের ইচ্ছা পূরণের জন্য নয়। যুক্তরাষ্ট্র যদি পারমাণবিক পরীক্ষা চালায়, তাহলে রাশিয়াও তা করতে পারে বলে ইঙ্গিত দেন পুতিন। 'এ মুহূর্তে তা জরুরি নয়—কিন্তু আমরা বিষয়টি নিয়ে চিন্তা করব। এবং আমি এ ধরনের পরীক্ষার বিষয়টিকে উড়িয়ে দিচ্ছি না। 

global fast coder
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  
Link copied