একের পর এক নারীর কাছে পাঠানো হচ্ছে ব্যবহৃত কনডোম, রহস্য কী?

Bartoman Protidin

১৭ দিন আগে বুধবার, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২৪


#

ভুক্তভোগী নারীরা সবাই একই বেসরকারি স্কুলে পড়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে

অনিচ্ছাকৃত গর্ভধারণ এড়াতে কার্যকর একটি উপায় হিসেবে কনডোমের ব্যবহার বেশ জনপ্রিয়। এটি যৌনবাহিত রোগ থেকেও সুরক্ষা দিয়ে থাকে। তবে যে অর্থেই হোক, ব্যবহারের পর এই বস্তুর জায়গা হয় আবর্জনার ভেতরে।

তবে নোংরা এই বস্তুটি যখন একের পর এক নারীর কাছে পাঠানো হয় তখন সেটিকে বেশ বিব্রতকর ঘটনা বলেই মনে করা হয়। শুনতে অবাক লাগলেও চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাটি ঘটেছে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহরে। এখন পর্যন্ত ৬৫ জন নারীর কাছে পাঠানো হয়েছে ব্যবহৃত কনডোম। বুধবার (১৭ মে) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডাকযোগে কমপক্ষে ৬৫ জন নারী ব্যবহৃত কনডোম পাওয়ার পরে অস্ট্রেলিয়ান পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। এর সঙ্গে হাতে লেখা বার্তা সম্বলিত চিঠিও রয়েছে এবং এগুলো দক্ষিণ-পূর্ব ও পূর্ব মেলবোর্নের বিভিন্ন ঠিকানায় পাঠানো হয়।

পুলিশ মনে করছে, ভুক্তভোগী নারীরা একে-অপরের সঙ্গে সম্পর্কিত এবং টার্গেটেড হামলার অংশ হিসেবেই তাদের কাছে সেগুলো পাঠানো হয়েছে।

বিবিসি বলছে, যেসব নারীর কাছে ব্যবহৃত কনডোম পাঠানো হয়েছে তাদের সবাই ১৯৯৯ সালে মেলবোর্ন শহরের কিলব্রেদা কলেজ প্রাইভেট গার্লস স্কুলে পড়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। এই ধরনের প্রথম ঘটনা চলতি বছরের মার্চ মাসে প্রথমবারের মতো এবং গত সোমবার সর্বশেষ ঘটনাটি রিপোর্ট করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মেলবোর্নের হেরাল্ড সান সংবাদপত্র জানিয়েছে, ভুক্তভোগী নারীরা সন্দেহ করছেন, তাদের ঠিকানাগুলো হয়তো তাদের পুরোনো স্কুলের ইয়ারবুক থেকে নেওয়া হয়েছে।

ব্রি ওয়াকার নামে এক নারী অস্ট্রেলীয় ওই সংবাদপত্রকে বলেন, যে রাতে তিনি ওই চিঠিটি পেয়েছিলেন সে রাতে তার ‘ঘুম হয়নি’। ওই চিঠিতে ‘খুব গ্রাফিক (হস্তলিখিত) বার্তা’ ছিল। তিনি পরে বন্ধুদের সাথে যোগাযোগ করেন যে, তারাও অনুরূপ কোনও প্যাকেজ পেয়েছেন কিনা।

পুলিশ বলছে, বেশিরভাগ নারী একাধিক চিঠি পেয়েছেন, যার সবকটিতে ব্যবহৃত কনডোম ছিল। এই ঘটনায় তদন্ত চলমান রয়েছে এবং পুলিশ যে কাউকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করার আহ্বান জানিয়েছে। বুধবার তারা এ বিষয়ে মামলার আপডেট দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

global fast coder
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  
Link copied